টাকা ইনকাম করার অ্যাপ বিকাশে | ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ 

২০২৪ সালে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এসব অ্যাপ ব্যবহার করে অনেকেই প্রতিদিন হাজার টাকা আয় করছে।

অনলাইনে অ্যাপ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন তা জানতে হলে এই ব্লগটি সম্পূর্ণ পড়তে হবে। এখানে আমি এমন অনেক ধরণের অ্যাপের সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যেগুলো ব্যবহার করে আয় করা যায়।

আমরা প্রতিদিন অনেক সময় ব্যয় করি মোবাইলের পেছনে। সারাদিন কাজের ফাঁকে বা অবসরে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের মতো সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রলিং কিংবা ইউটিউব ভিডিও দেখে কেঁটে যায়।

কিন্তু আপনি চাইলে হাতের এই মোবাইল ফোনটি ব্যবহার করে অনলাইনে আয় করতে পারেন। এজন্য আপনাকে তেমন পরিশ্রমও করতে হবে না। শুধু একটু কৌশলী হতে হবে।

আপনি যদি কোনো বিষয়ে দক্ষ বা স্কিলড না হন তারপরেও আয় করতে পারবেন। তবে আপনার ফোনে মোবাইল ডেটা এবং বেশ রাফ ইউজ করা যায় এমন কনফিগারেশনের হতে হবে।

 

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২৪

আপনি আমার এই ব্লগটি যেহেতু পড়ছেন তার মানে আপনার কাছে একটা স্মার্টফোন আছে। আর এই স্মার্টফোনটি হতে পারে পকেট মানি আয় করার হাতিয়ার।

অনেক ছেলেমেয়ে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ দিয়ে প্রতি মাসে কয়েক হাজার আয় করছে। এতে করে তাদের দৈনন্দিন হাত খরচের টাকা উঠে যাচ্ছে।

আপনিও যদি এমনটা চান তাহলে আমাদের ব্লগে আপনাকে স্বাগতম। রেফার করে, ভিডিও দেখা অথবা গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ব্যবহার করা সম্বন্ধে জানতে পারবেন।

নিচের অংশে আমরা ধাপে ধাপে এসব মোবাইল অ্যাপ নিয়ে কথা বলবো। পরিচিত হবো এবং জানবো কোন অ্যাপ দিয়ে কিভাবে টাকা ইনকাম করতে হয়।

আপনি প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে যে সময়টা অপচয় করতেন সেই সময়ে এই অ্যাপে কাজ করে ভালো পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন।

আর এগুলো থেকে অর্জিত আয় বিকাশে নেওয়া যায়। অর্থাৎ বাংলাদেশের টাকা ইনকাম করার অ্যাপ বিকাশে পেমেন্ট দেয়।

তো আর বেশি কথা না বাড়িয়ে চলুন Taka Incom Korar Apps কোনগুলো এবং সেগুলো দিয়ে কিভাবে আয় করবেন তা জেনে নিই।

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

আমরা অনেকেই অবসর সময় পার করতে নানা ধরণের গেম খেলে থাকি। এগুলোর কিছু গেম অফলাইনে আবার কিছু অনলাইন গেম রয়েছে।

তবে আপনি যদি নিচের অ্যাপগুলো সম্পর্কে জানেন তাহলে অবসর সময়ে অন্য গেম না খেলে এগুলো খেলবেন।

অনলাইন গেম খেলে আমরা বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেয়। এতে প্রাপ্তি বলতে শুধু মানসিক শান্তিটাই পাওয়া যায়। টাকা পয়সা আয় হয় না।

কিন্তু আপনি যদি অনলাইন গেম খেলে আয় করতে চান তাহলে আপনার সামনে অনেক সুযোগ রয়েছে। অর্জিত টাকা আপনি মোবাইল ব্যাংকিং ওয়ালেট কিংবা রিচার্জ করে নিতে পারবেন।

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস হলো

Big
Cash

Dream
11

MPL
App

Winzo
Games

Zupee

 

Big
Cash
অ্যাপ

Big
Cash
হলো ভারতের অন্যতম বড় জনপ্রিয় গেমিং প্ল্যাটফর্ম। এখানে মূলত একসাথে একাধিক গেম খেলা যায়। অর্থা একটা অ্যাপ ইনস্টল করলে আপনি অনেক গেম খেলার সুযোগ পাবেন।

আর এসব গেমে জিততে পারলে পুরষ্কার পাবেন। তবে এজন্য প্রথমে আপনাকে কিছু টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। এই অ্যাপ ব্যবহার করে কয়েক লক্ষ মানুষ টাকা ইনকাম করছে।

Big
Cash
অ্যাপে Knife Hit, Rummy,
Cricket, Football, Fruit Chop, Car Race
সহ অনেক ধরনের গেম পাবেন।

অনলাইনে রিয়্যাল প্লেয়ারদের সাথে আপনাকে এসব গেম খেলতে হবে। আর ব্যালেন্সে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ জমা হয়ে গেলে Paytm, Paypal, Bank
Account-
উত্তোলন করতে পারবেন।

Dream
11
অ্যাপ

Dream
11
হলো একটি ভারতীয় মোবাইল অ্যাপ। এখানে বিভিন্ন ধরনের টুর্নামেন্টে হয়ে থাকে। যেমন ক্রিকেট, ফুটবল, হকি, বাস্কেটবল ইত্যাদি।

প্রতিদিন সারাবিশ্বে নানান ধরনের লাইভ ম্যাচে হয়ে থাকে। আপনাকে এই অ্যাপে এসব লাইভ ম্যাচের জন্য একটা ভার্চুয়াল দল তৈরি করতে হবে এবং পছন্দ মতো খেলোয়ার বাছাই করতে হবে।

আপনার বাছাই করা খেলোয়াড় বা দল বাস্তবে কেমন পারফরম্যান্স করবে তার উপরে ভিত্তি করে আপনাকে পয়েন্ট দেওয়া হবে।

পরবর্তীতে এই পয়েন্ট ভাঙিয়ে আপনি টাকা অথবা রুপিতে রূপান্তর করতে পারবেন। চাইলে থার্ড পার্টির মাধ্যমে নিজের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা নিতে পারবেন।

Winzo
Games

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২৩ এর মধ্যে অন্যতম হলো Winzo এটি মূলত একটি মাল্টিগেমিং প্লাটফর্ম। এই অ্যাপের মধ্যে আপনি বিভিন্ন ধরনের অনলাইন গেমিং করতে পারবেন। যেমন লুডু, ক্যারাম, ফ্যান্টাসি ক্রিকেট, আর্চারি, ফ্রুটস কাটিং সহ অসংখ্য গেম পেয়ে যাবেন।

আপনাকে প্রথমে এই অ্যাপ ইনস্টল করে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। আর রেফার কোড ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট খুললেই পেয়ে যাবেন ৫৫০ টাকা বোনাস।

এরপরে অ্যাপে লগিন করে আপনার পছন্দমতো বিভিন্ন গেম খেলতে পারবেন। এসব গেম খেলে বিজয়ী হলে আপনি পয়েন্টস সহ রিয়্যাল ক্যাশ জিতে নিতে পারবেন।

এরপর অ্যাপ থেকে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, মোবাইল ওয়ালেট সহ বিভিন্ন উপায়ে টাকা উঠাতে পারবেন। এমনকি বিকাশ, নগদ, রকেটেও নিতে পারবেন।

MPL
– Mobile Premier League

ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় গেমিং অ্যাপের তালিকায় প্রথমেই রয়েছে MPL, যার ব্যবহারকারীর সংখ্যা কোটিরও বেশি।

উপরে উল্লিখিত অ্যাপগুলোর মতোই এটি। এখানে আপনি অনলাইনে অন্যদের সাথে বিভিন্ন ধরনের গেম খেলতে পারবেন। তার মধ্যে রয়েছে Ludo, Kabaddi,
Basketball, Bubble Matching
ইত্যাদি।

এই অ্যাপে যত টাকা জিতবেন তা Paypal, Paytm, Bank
Account, UPI
এর মাধ্যমে উঠাতে পারবেন। আর বাংলাদেশিরা বিকাশ, নগদ, রকেট অ্যাকাউন্টে নিতে পারবেন।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২৪

আমরা তো প্রতিদিন ইউটিউব, ফেসবুক, টিকটক সহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে অসংখ্য বিনোদনমূলক ভিডিও দেখি। কিন্তু সেগুলো থেকে কোন আর্নিং হয়?

উত্তর হচ্ছে না, হয় না। তবে এখন আপনাদেরকে এমন কিছু apps এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যেগুলোতে আপনি অনেক ধরনের ভিডিও দেখতে পারবেন পাশাপাশি আয় করতে পারবেন।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ

আমাদের দেশের অনেকেই ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ সম্পর্কে জানতে চান। বিষয়ে ইউটিউবে অনেক টিউটোরিয়ালও আছে।

এখানে আমি টিউটোরিয়াল দেব না, শুধু অ্যাপগুলোর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব। এবং এর ফিচারগুলোর ব্যাপারে জানাবো।

কোনটা দিয়ে কিভাবে টাকা আয় করবেন সেটা ইউটিউবে সার্চ দিলেই পেয়ে যাবেন। এতে তেমন অসুবিধা হবে না।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অ্যাপ তালিকা

ClipClaps

VidCash

CheeseFree

Swagbucks

এখন আসুন এদের সাথে সংক্ষেপে পরিচিত হই।

ClipClaps

এটি হলো একটি শর্ট ফর্ম ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ। অনেকটা টিকটক, লাইকির মতো।

এই অ্যাপের ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন ধরনের ফানি শর্ট ভিডিও তাদের অ্যাকাউন্টে আপলোড করে থাকে। অন্যরা সেসব ভিডিও দেখতে পারে, রিয়্যাকশন দিতে পারে এবং একজন অন্যজনকে ফলো করতে পারে।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অন্যতম সেরা অ্যাপ হলো ClipClaps. এখানে সর্বনিম্ন ১০ ডলার হলে withdraw করা যায়।

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, পেপাল, মোবাইল রিচার্জ সহ আরও কিছু মাধ্যমে টাকা নেওয়া যায়। আপনি বাংলাদেশের যেকোনো অপারেটরের সিমে মোবাইল রিচার্জ করে নিতে পারবেন। এজন্য সর্বনিম্ন ডলার হলেই হবে।

অ্যাপে ভিডিও দেখলে এবং তাতে লাইক দিলে আপনাকে কয়েন দেওয়া হবে। পরবর্তীতে আপনি সেই কয়েনকে ডলারে কনভার্ট করতে পারবেন এবং real money পাবেন।

VidCash

VidCash
অ্যাপে ফানি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এখানে কারো রেফারেল ব্যবহার করে।অ্যাকাউন্ট খুললে বোনাস পাওয়া যায়।

এছাড়া এই অ্যাপ থেকে আর্নিং করা অর্থ আপনি সরাসরি বিকাশ অ্যাকাউন্টে অথবা অন্য যেকোনো মোবাইল ওয়ালেটে নিতে পারবেন।

গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপটি পাওয়া যাচ্ছে। তাই অন্যকোনো সোর্স থেকে ইনস্টল করতে হবে। প্লে স্টোরে VidCash লিখে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন।

CheeseFree
– Earn Money

এই অ্যাপটি পর্যন্ত প্লে স্টোর থেকে ইনস্টল করা হয়েছে লাখের বেশিবার। তাতে বুঝতেই পারছেন এটি কতটা জনপ্রিয়।

এখানে আপনি অ্যাকাউন্ট খুলে শর্ট ফর্ম ভিডিও আপলোড দিতে পারবেন। ভিডিওতে views, likes, reaches অনুযায়ী আপনাকে টাকা দেওয়া হবে।

এছাড়া অন্যকারো ভিডিও দেখলে বা লাইক করলেও আপনি টাকা পাবেন। এই টাকা সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, মোবাইল ওয়ালেট কিংবা পেপালে নিতে পারবেন।

এছাড়া বন্ধু পরিচিতদেরকে অ্যাপ রেফার করে আয় করতে পারবেন। কারো রেফারেল কোড ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট খুললেও পাবেন বোনাস।

Swagbucks

Swagbucks
অ্যাপটি খুবই ছোট, মাত্র মেগাবাইট সাইজের। এটা প্লে স্টোর থেকে ফোনে ইনস্টল করা যায়।

এছাড়া এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটেও অ্যাপটি পেয়ে যাবেন। অ্যাপে গান, সিনেমা, ফানি ভিডিও, শর্ট ভিডিও থাকে সেগুলো দেখলে আপনি কয়েন জিতবেন।

আবার আপনি নিজে ভিডিও বানালে আর তা অন্যকেউ দেখলেও আপনি কয়েন জিতবেন। অনেক কয়েন জমা হলে তা রিডিম করে নগদ টাকায় রূপান্তর করা যায়।

আপনি যদি ফোনে app ইনস্টল করতে না চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইটেও কাজ করতে পারবেন। এগুলো খুবই ছোট ছোট কাজ। খুব অল্প সময়েই কমপ্লিট করা সম্ভব।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার জন্য এটা খুবই জনপ্রিয় বিশ্বস্ত অ্যাপ। তাদের ওয়েবসাইটে গেলে এটা সম্পর্কে আরও ভালো ধারণা পাবেন।

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ বাংলাদেশ

উপরের অংশে এই ধরনের কিছু অ্যাপের নাম বলেছি যেগুলো বাংলাদেশি অ্যাডমিনের।

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ বাংলাদেশ এর হলে সহজ পেমেন্ট অপশনের মাধ্যমে দ্রুত withdraw করা যায়। আবার কোনো সমস্যা হলে অ্যাডমিনের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করা সম্ভব।

তবে বাংলাদেশি অ্যাপগুলোর একটা সমস্যা হলে এগুলোর বেশিরভাগই ফেক। অর্থাৎ আপনাকে প্রলোভন দেখিয়ে কাজ করিয়ে নেবে কিন্তু পেমেন্ট ক্লিয়ার করবে না।

তাই নিজ দায়িত্বে বুঝে শুনে কাজ করবেন। টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২৪ সম্পর্কে উপরে উল্লিখিত সকল তথ্য ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত। এসব অ্যাপ ব্যবহারে কেউ প্রতারিত হলে আমরা কোনোভাবেই দায়ী নয়।

Leave a Comment